কে হচ্ছেন রিয়াল এর কোচ ?

0
19

চতুর্থ আর্জেন্টাইন হিসেবে আগামীকাল রিয়াল মাদ্রিদের কোচের ভূমিকায় অভিষেক হচ্ছে সান্তিয়াগো সোলারির। ভারপ্রাপ্ত কোচ সোলারির বদলে স্থায়ী কোচ হিসেবে আসতে পারেন আরেক আর্জেন্টাইন মাউরিসিও পচেত্তিনো


 

সর্বশেষ ছিলেন হোর্হে ভালদানো। সেটিও ১৯৯৬ সালের জানুয়ারি মাসের কথা। গত প্রায় ২৩ বছরে রিয়াল মাদ্রিদের ডাগআউটে আর কোনো আর্জেন্টাইন কোচ দাঁড়াননি। ভালদানো এরপর দীর্ঘ মেয়াদে রিয়ালের ক্রীড়া পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেছেন বটে। অবশেষে শিগগিরই রিয়ালের ডাগআউটে একজন আর্জেন্টাইনকে দেখা যাবে। ভারপ্রাপ্ত কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেওয়া সান্তিয়াগো সোলারি লিওনেল মেসি আর চে গুয়েভারার শহর রোজারিওর মানুষ। সোলারি রিয়ালের রিজার্ভ দলের কোচ। আপাতত স্থায়ী কোচ নিয়োগের আগে মূল দলের দায়িত্ব সামলাতে হবে তাঁকে। জিনেদিন জিদানকেও অনেকটা এভাবে আকস্মিকভাবে সহকারী থেকে মূল কোচের দায়িত্বে বসিয়ে অবিশ্বাস্য সাফল্য পেয়েছিল রিয়াল।

সোলারিকে অবশ্য নতুন জিদান ভাবছে না রিয়াল। বরং তাঁরা হাইপ্রোফাইল স্থায়ী কোচ খুঁজছে। তত দিন পর্যন্ত সোলারিই দায়িত্ব সামলাবেন দলের। রিয়াল দ্রুত কোচ নিয়োগ দিতে পারছে না বেশ কিছু জটিলতায়। আপাতত তাদের সামনে সবচেয়ে সহজ সমাধান আন্তোনিও কন্তেকে কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া। বড় নামগুলোর মধ্যে কন্তেই আপাতত বেকার বসে আছেন। তবে কন্তেই রিয়ালের চূড়ান্ত পছন্দ নাও হতে পারে। সে ক্ষেত্রে রিয়াল নাকি বিকল্প হিসেবে ধরে রেখেছে মাউরিসিও পচেত্তিনোকে।

এর আগেও টটেনহামের দায়িত্বে থেকে নজরকাড়া এই তরুণ কোচকে ভেড়ানোর চেষ্টা করেছিল রিয়াল। সেবার পারেনি। তবে এবার নাকি ক্লাব আরও একবার জোর চেষ্টা চালিয়ে দেখবে। পচেত্তিনো রিয়ালে চলে এলে স্থায়ী কোচ হিসেবেও একজন আর্জেন্টাইনকে পাবে রিয়াল। খেলোয়াড়ি জীবন ছেড়ে এখন ফুটবল পণ্ডিত হিসেবে নাম করা গ্যারি নেভিল পর্যন্ত মনে করেন, পচেত্তিনো আর বেশি দিন টটেনহামে নেই। টটেনহাম থেকেই রিয়াল এর আগে গ্যারেথ বেল আর লুকা মদরিচের মতো খেলোয়াড়কে দলে টেনেছে। এবার টানতে পারে কোচকেও।

জুলেন লোপতেগুয়ে গতকাল বরখাস্ত হন রিয়াল মাদ্রিদ কোচ হিসেবে ।


কন্তের সঙ্গে চেলসির ঝামেলা এখনো মেটেনি। চেলসির কাছ থেকে ক্ষতিপূরণের ১০ মিলিয়ন ইউরোর অঙ্ক নিয়ে এখনো দুই পক্ষের দর-কষাকষি চলছে। এর মধ্যে রিয়ালের কোচ হিসেবে নিয়োগ পেতে চাইলে কন্তেকে হয় সেই টাকার মায়া ছাড়তে হবে, অথবা রিয়ালকে তা পুষিয়ে দিতে হবে। চেলসি তাই মনে মনে খুব করেই চাইবে কন্তে যেন রিয়ালের কোচ হয়ে যান।

কিন্তু এই ইতালিয়ানকে কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার ক্ষেত্রে রিয়াল দৃশ্যত পিছু হটেছে বলেই মনে হচ্ছে। লোপেতেগিকে সরিয়ে কন্তের নাম ঘোষণা সময়ের ব্যাপার মনে হচ্ছিল। দুটোই একই সঙ্গে ঘটবে এমন আভাসও মিলছিল। কারণ রিয়ালের হাতে আসলে সময় নেই। বুধবার কোপা ডেল রের ম্যাচ আছে। সবকিছু প্রস্তুত থাকার পরও কন্তের নাম ঘোষণা হয়নি, এর পেছনে খোঁজা হচ্ছে অন্য কারণ। ইতালিয়ান কোচ কন্তে মেজাজি বলে পরিচিত। এই মেজাজের কারণেই কোথাও দুই বছরের বেশি টিকতে পারেন না। যদিও তাঁর সাফল্য নিয়ে কোনো প্রশ্ন নেই।

কন্তের এই মেজাজের কারণেই রিয়াল মাদ্রিদের তারকা খেলোয়াড়েরা নাকি তাঁকে চাইছেন না। রিয়ালের আসলে দরকার জিদানের মতো কোচ, যিনি নিজের তারকার অহং আড়াল করে রিয়ালের খেলোয়াড়দের সামনে তুলে ধরতে পারবেন। তারকা ক্লাবগুলোতে এমন কোচই বেশি কার্যকর হয়। কন্তে রিয়ালে এসে আরও একজন হোসে মরিনহো হয়ে যেতে পারেন, এটাই শঙ্কার কারণ। রিয়ালকে সিদ্ধান্তও নিতে হবে দ্রুত। কারণ স্থায়ী কোচের পদ দুই সপ্তাহের বেশি ফাঁকা রাখার নিয়ম নেই স্প্যানিশ ফুটবলে।

এদিক দিয়ে রিয়ালের পছন্দ পচেত্তিনো। মাঝারি বাজেটের দল নিয়েও পচেত্তিনো টটেনহামকে ধারাবাহিকভাবে শীর্ষ দলগুলোর কাতারে রেখেছেন। পচেত্তিনোর ব্যাপারে রিয়ালের আগ্রহ আগে থেকেই ছিল। কিন্তু তখন সবকিছু মেলেনি। এবার পচেত্তিনো নিজেও নাকি বিরক্ত ক্লাব তাঁর চাহিদা অনুযায়ী দল-বদলের বাজারে খেলোয়াড় না কেনায়। একদিন না একদিন তিনি রিয়াল-বার্সার মতো বড় ক্লাবগুলোতে যেতেনই। নেভিল মনে করেন, এটাই সেই সময়।

শেষ পর্যন্ত কী হচ্ছে তা জানতে আপাতত অপেক্ষা করতে হচ্ছে। তবে রিয়ালের ডাগআউটে প্রায় ২৩ বছর পর একজন আর্জেন্টাইনের দাঁড়ানোর ঘটনা দেখা যাবে কালই। সোলারি হবেন রিয়ালের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করা চতুর্থ আর্জেন্টাইন।

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here