সাকিবই আমার দেখা সেরা!

0
20
সাকিব ও স্টিভ রোডস
সাকিব ও স্টিভ রোডস

বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব নেওয়ার পর স্টিভ রোডসের প্রথম ‘মিশন’ ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর। তারপর এশিয়া কাপ। এশিয়া কাপ থেকে ফিরেই ঘরের মাঠে চলতি জিম্বাবুয়ে সিরিজ পর্যন্ত কোচ রোডস কাজ করার অভিজ্ঞতা হয়েছে তিন ফরম্যাটের দুই অধিনায়কের সঙ্গে। সাকিব ইনজুরিতে পড়ায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট দিয়ে কাজ করবেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সঙ্গেও। তবে বাংলাদেশ কোচ এদের মধ্যে এখন পর্যন্ত তাঁর দেখা ‘সেরা ট্যাকটিক্যাল’ অধিনায়ক রায় দিয়ে বড় একটা প্রশংসাপত্রই দিলেন সাকিবকে।


বাংলাদেশের কোচ হওয়ার পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাঁর শুরুটা ছিল ভয়াবহ! গত জুলাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাজেভাবে টেস্ট সিরিজ হেরেছে বাংলাদেশ। এরপরই ঠিক উল্টো ছবি, সাফল্যের ভেলায় ভেসে এগিয়ে চলেছেন স্টিভ রোডস। ইংলিশ কোচের অধীনে বাংলাদেশ পাচ্ছে একের পর এক সাফল্য। এশিয়া কাপের ফাইনাল। সবশেষ জিম্বাবুয়েকে ধবলধোলাই করেছে বাংলাদেশ।

আজ সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে অনুশীলনের পর কোচ রোডসের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল বাংলাদেশ দলের কোন অধিনায়কের সঙ্গে কাজ করাটা কতটা চ্যালেঞ্জিং? ইংলিশ কোচের কাছে যোগ্য অধিনায়ক সাকিব আল হাসানই। তাকে ভাসিয়েছেন প্রশংসার বন্যায়। রোডসের চোখে কৌশলগত দিক বিবেচনায় তার সঙ্গে কাজ করা অধিনায়কদের মধ্যে সবচেয়ে সেরা সাকিব।

‘এখন পর্যন্ত সাকিবকে আমি সবথেকে বেশি যোগ্য হিসেবে খুঁজে পেয়েছি কাজ করার ক্ষেত্রে। আমি এর আগেও অনেক অধিনায়কের সাথে কাজ করেছি। তবে সাকিব হলো সবথেকে সেরা ট্যাকটিক্যাল অধিনায়ক যার সাথে আমি কাজ করেছি। তার অসামান্য স্ট্রেন্থ রয়েছে।’

মাশরাফি ও স্টিভ রোডস

৫০ ওভারের ফরম্যাটে বাংলাদেশের খেলার দিকে তাকালে বোঝা যাবে, মাশরাফি দারুণ একজন অধিনায়ক। সে যেভাবে দল চালায় তা উদাহরণ। সে যোদ্ধাদের সেনাপতির মতো। দলের সবাই তাকে পেছন থেকে অনুসরণ করে। ক্যাপ্টেন ম্যাশের সাথে কাজ করেও বেশ উপভোগ করছেন স্টিভ রোডস।

‘ম্যাশও দারুণ একজন মানুষ কাজ করার জন্য। সে সাকিবের থেকে ভিন্ন, সে প্যাশন এবং প্রাইডের জন্য খেলে। সাকিবও সেটি করে, তবে ম্যাশ সেটি প্রকাশ করতে পারে। সে ক্রিকেটারদের কাছ থেকে অনেক কিছু প্রত্যাশা করে এবং সে ক্রিকেটারদের সেরাটা বের করে আনতে পারে। সে একজন একজন যোদ্ধা এবং দলকে দারুণভাবে নেতৃত্ব দিচ্ছে। সুতরাং আমি ম্যাশের সাথে কাজ করতে উপভোগ করছি।’

মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ

বাংলাদেশ টেস্ট দলের নিয়মিত অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ইনজুরির কবলে পড়ে মাঠের বাইরে। তাই অধিনায়কত্বের ভার পড়েছে সহ-অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের উপর। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সঙ্গে মাত্র কাজ শুরু করেছেন রোডস, তাই তাকে বুঝতে একটু-ত সময় লাগবেই। অধিনায়ক রিয়াদ প্রসঙ্গে রোডস বলেন,

‘আর রিয়াদ এখন নতুন অধিনায়ক হয়েছে। তার সম্পর্কে খুব বেশি বলতে না পারলেও শুরুর দিকে আমরা কয়েকটি সংক্ষিপ্ত মিটিং করেছিলাম দল নির্বাচনের ব্যাপারে। আশা করি নির্বাচকেরা সেগুলো দেখভাল করবে। আশা করি তাঁর (রিয়াদ) সাথে আরেকটি মিটিং করবো।’

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here